ভর্তিপ্রক্রিয়া

প্রথম ধাপ- আবেদনপত্র পূরণ

আপনি আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন। এছাড়াও আপনার ক্যাম্পাস অ্যাম্বাসেডরের এবং আমাদের অফিস কাছ থেকে সংগ্রহ করতে পারেন।

দ্বিতীয় ধাপ- ইন্টারভিউ
  • প্রাথমিক ভাবে বাছাইকৃত প্রার্থীকে চূড়ান্ত বাছাই প্রক্রিয়ার জন্য বিওয়াইএলসি হেডকোয়ার্টারে ইন্টারভিউ এর জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয় এবং ঢাকার বাইরে বসবাসকারী প্রার্থীদের ইন্টারভিউ মোবাইল ফোনের মাধ্যমে নেওয়া হয়।

নোটঃ প্রথম আবেদনের ফলাফলের ভিত্তিতে বিবিএলটি প্রোগ্রামের প্রার্থীদের ইন্টারভিউ এর আগে একটি অতিরিক্ত লিখিত পরীক্ষা এবং গ্রুপ ডিসকাশনে অংশ নিতে হয়।

ইন্টারভিউ এর দিন আপনাকে সাথে করে যে ডকুমেন্টগুলো আনতে হবে:

  • জাতীয় পরিচয় পত্র/ পাসপোর্টের পরিচয় পাতা/ জন্মনিবন্ধন সনদ এর যেকোনো একটি
  • বর্তমান স্টুডেন্ট আইডি কার্ড অথবা ছাত্রত্বের প্রমাণপত্র

যদি আপনি ফোনে ইন্টারভিউ এর জন্য মনোনীত হোন তাহলে ইন্টারভিউ এর কমপক্ষে দুদিন আগে উপরের সমস্ত ডকুমেন্ট ইমেইলের মাধ্যমে পাঠাতে হবে।

কিভাবে শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হয়?

বিওয়াইএলসির প্রোগ্রামগুলোর ভর্তিপ্রক্রিয়াটি বেশ প্রতিযোগিতা মূলক। আমাদের অ্যাডমিশন কমিটি আবেদনগুলোকে সামগ্রিকভাবে যাচাই করে। প্রাতিষ্ঠানিক ভালো ফলাফল ছাড়াও আমরা শিক্ষার্থীর নেতৃত্ব অনুধাবনের ক্ষমতা, বিশ্লেষণধর্মী ভাবনার এবং যোগাযোগ দক্ষতা যাচাই করে থাকি।

আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, চূড়ান্ত বাছাইয়ের সময় আমরা প্রার্থীদের মাঝে বৈচিত্র্য নিশ্চিত করার চেষ্টা করে থাকি। সাধারণত লিঙ্গ, সক্ষমতা, শিক্ষা মাধ্যম (বাংলা, ইংরেজি এবং মাদ্রাসা মাধ্যম), প্রাতিষ্ঠানিক অভিজ্ঞতা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং ভৌগলিক অবস্থানের দিক বিবেচনা করে বৈচিত্র্য সমন্বয় করা হয়।

কখন জানতে পারবো আমি নির্বাচিত হয়েছি কিনা?

কনফার্মেশন কখন করা হবে তা কতসংখ্যক আবেদন আমরা গ্রহণ করেছি তার উপর নির্ভর করে। তবে আমরা সাধারণত ডেডলাইন পরবর্তী তিন সপ্তাহের মধ্যে যোগাযোগ করে থাকি। আমরা প্রার্থীদের সাথে এসএমএস, ফোন কল অথবা ইমেইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করি, সুতরাং আপডেটেড থাকতে নিয়মিত চেক করতে ভুলবেন না।

আমি কি আর্থিক সহায়তা পেতে পারি?

আমরা প্রয়োজনের উপর ভিত্তি করে আর্থিক সহায়তা প্রদান করে থাকি। আপনার একাডেমিক ব্যাকগ্রাউন্ড ও বিওয়াইএলসির ভর্তিপরীক্ষায় আপনার পারফর্মেন্স এবং পরিবারের অর্থনৈতিক অবস্থা বিবেচনা করে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হবে।

আর্থিক সহায়তার জন্য কিভাবে আবেদন করবো?

যদি আপনি আর্থিক সহায়তা পেতে আগ্রহী হোন তাহলে অনুগ্রহ পূর্বক ইন্টারভিউ এর সময় তা জানান অথবা সরাসরি admissions@bylc.org এ ইমেইলের মাধ্যমে আমাদের অ্যাডমিশন কমিটিকে জানাতে পারেন। আপনার অনুরোধের ভিত্তিতে আপনাকে একটি অনলাইন ফিন্যান্সিয়াল এইড ফর্ম পাঠানো হবে।

আমি কি রিফান্ড পেতে পারি?

হ্যাঁ। যদি আপনি রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করে থাকেন কিন্তু কোন সুনির্দিষ্ট কারণে আপনার পক্ষে প্রোগ্রামে অংশ নেওয়া সম্ভব না হয় তবে যথাসময়ে রিফান্ডের জন্য আবেদন করলে আপনি অবশ্যই রিফান্ড পেতে পারেন। প্রোগ্রাম শুরুর ১৪দিন আগে প্রত্যাহার করলে ৯০% এবং ৭দিন আগে প্রত্যাহার করলে ৫০% রেজিস্ট্রেশন ফি ফেরত পাওয়া যাবে। প্রোগ্রাম শুরুর ৬ দিন আগে রেজিস্ট্রেশন প্রত্যাহার করলে কোন ধরণের রিফান্ডের সুযোগ নেই। কেননা তখন সেই আসনে আরেকজন শিক্ষার্থীকে অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়া সম্ভব হয়না।

কিভাবে আমার ক্যাম্পাস অ্যাম্বাসেডরের সাথে যোগাযোগ করতে পারি?

দেশের ৫০ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিওয়াইএলসির প্রতিনিধিত্বকারী ৬৪ জন ক্যাম্পাস অ্যাম্বাসেডর রয়েছেন। আপনি আপনার প্রতিষ্ঠানের ক্যাম্পাস অ্যাম্বাসেডরের সাথে ব্যক্তিগতভাবে যোগাযোগ করতে পারেন এবং আমাদের কার্যাবলী, প্রোগ্রামগুলি এবং অন্যান্য প্রাসঙ্গিক তথ্য সম্পর্কে জানতে পারেন।

যদি আপনি প্রোগ্রামের জন্য নির্বাচিত হোন তবে অ্যাডমিশন কমিটি পেমেন্ট এবং রেজিস্ট্রেশন এর ব্যাপারে আপনার সাথে যোগাযোগ করবে।